করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে নিউইয়র্কে ‘হিজাব-নিকাব’ পরার নির্দেশ

0
30

কেউ ঘর বাইরে বের হলে তাদের স্কার্ফ দিয়ে মুখ ঢেকে (হিজাব-নিকাব) বের হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন নিউইয়র্ক সিটি মেয়র বিল ডি ব্লাজিও।

তিনি বলেছেন, ঘরে তৈরি স্কার্ফ (হিজাব-নিকাব) হলেও তা পরে বাইরে বের হতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) এক সংবাদ সম্মেলনে নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডি ব্লাজিও একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বাইরে বের হলে বা অন্য মানুষের কাছাকাছি গেলে মুখ কাপড়ে ঢেকে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এটি একটি স্কার্ফ হতে পারে বা বাড়িতে তৈরি যেকোনো কিছু হতে পারে, যা দিয়ে মুখ পুরো ঢেকে রাখা যায়।’

বিল ডি ব্লাজিও সার্জিক্যাল মাস্ক বা অন্যান্য মেডিকেল-গ্রেডের মাস্ক ব্যবহার না করতে নিউইয়র্কের বাসিন্দাদের সতর্ক করে এ কথা বলেছেন।

তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, এমনিতেই এখন হাসপাতালগুলোতে এসব সরঞ্জামের ঘাটতি রয়েছে। সেখানে যারা সুস্থ থেকেও ব্যক্তিগত সুরক্ষায় সার্জিক্যাল বা ক্লিনিক্যাল মাস্ক ব্যবহার করছেন, তাদের কারণে হাসপাতালগুলোতে এসব অতি দরকারি সরঞ্জামের আরও সংকট সৃষ্টি হবে।

বিল ডি ব্লাজিও আরও বলেন, আমাদের স্বাস্থ্যসেবা কর্মী এবং প্রথম সারিতে থেকে যারা সরাসরি হাসপাতালে আছেন, এগুলো তাঁদের প্রয়োজন। এসব খুবই মূল্যবান, যা এই সময়ে অনেক কষ্ট করে সংগ্রহ করা আসা হয়েছে। তাই তিনি এসবের ব্যবহার সম্পর্কে একটু সচেতন হতে সবাইকে স্কার্ফ ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন।

নিউইয়র্কের মেয়র বলেন, ৬ এপ্রিলের মধ্যে নিউইয়র্ক নগরীর হাসপাতালগুলো করোনাভাইরাস রোগীদের আসন্ন স্রোত সামলাতে প্রস্তুত হওয়ার জন্য এবং ৫ এপ্রিলের মধ্যে নগরীর হাসপাতালে ৩৩ লাখ এন ৯৫ মাস্ক, ২১ লাখ সার্জিক্যাল মাস্ক, এক লাখ গাউন ও ৪০০ ভেন্টিলেটর পাওয়া অবশ্যই দরকার। না হলে মানুষের সংক্রমণ ও মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব হবে না।

এদিকে আমেরিকার সংক্রামক রোগ সোসাইটির কর্মকর্তা চিকিৎসক অ্যাঞ্জেলা হিউলেট বলেছেন, স্কার্ফ বা অন্য কোনো কিছু দিয়ে মুখ বন্ধ করা গেলে অন্যকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়া থেকে রক্ষা করতে পারে। এ জন্য একটি স্কার্ফ রুমাল বা টিস্যু জাতীয় জিনিস এ ধরনের সংক্রমণ রোধে কাজ করবে।

এরপর শুক্রবার (৩এপ্রিল) একই কথা বলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তিনি বলেছেন, কাপড়ের ঘনত্বের বিচারে স্কার্ফ মাস্কের ভালো বিকল্প।



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে