ভারতে নাক ডাকায় বাবাকে পিটিয়ে মেরেই ফেলল ছেলে

0
24

সন্তানের সঙ্গে পিতার সম্পর্ক হয় খুবই মধুর। নিজের সবটুকু দিয়ে সন্তানকে বড় করেন পিতা। সেই পিতাকেই খুন করেছে সন্তান। তাও তুচ্ছ কারণে। ঘুমের সময় নাক ডাকে বাবার। ছেলের কাছে এটাই অপরাধ। নাক ডাকা নিয়ে ঝামেলা করে একপর্যায়ে বাবাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে খুন মেরেই ফেলল ছেলে।

এমন নৃশংস ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের পিলভিট জেলার সৌধা গ্রামে। নিহত ওই বাবার নাম রামস্বরূপ। বয়স ৬৫ বছর। পরিবারে তার স্ত্রী ও দুই ছেলে রয়েছে। বড় ছেলে নবিন এবং ছোট ছেলে মুকেশ।

ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত ছেলে। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে ওই রাজ্যের পুলিশ। বাবার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) রাতে ছোট ছেলে মুকেশকে নিয়ে এক আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন রামস্বরূপের স্ত্রী। বাড়িতে ছিল বড় ছেলে নবিন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বাবার সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে মাঝেমধ্যেই ঝামেলা হত নবিনের। ওইদিন রাতে নাক ডাকা নিয়ে রামস্বরূপ ও নবিনের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে লাঠি নিয়ে বাবার ওপর আক্রমণ করে নবিন। মার খেয়ে একপর্যায়ে খাট থেকে নিচে পড়ে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে যান রামস্বরূপ। এরপর সেখান থেকে পালিয়ে যায় নবিন।

ওই ঘটনার পর ছোট ছেলে মুকেশকে ফোন করে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি বাড়ি ফেরে সে। এরপর গুরুতর আহত রামস্বরূপকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

শেয়ার করুণ

  •  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে