ভাগ্যবান’ লংকান অধিনায়ক স্ট্যাম্পে বল লেগেও বেঁচে যান

0
38
নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্কঃ বিশ্বকাপের তৃতীয় ম্যাচে কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট করার সময় নিউজিল্যান্ড টস জিতে শ্রীলংকাকে ফিল্ডিয়ের আমন্ত্রণ জানায়।নিউজিল্যান্ডের পেসারদের তোপের মুখে শ্রীলংকা যখন ধুঁকছিল, ঠিক ওই সময় লংকান অধিনায়ক ভাগ্যের জোরে বেঁচে যান। উইকেটে বল সরাসরি আঘাত হানলেও ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান অধিনায়ক দীমুথ করুণারত্নে।
খেলার ৬ষ্ঠ ওভারে ট্রেন্ট বোল্টের সুইং বল বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান করুণারত্নেকে পুরোপুরি পরাস্ত করে। বোল্টের সর্ট ডেলিভারি দেয়া ওই বলটি স্ট্যাম্পে আঘাত হানে।
টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটি আসলে অফ স্ট্যাম্পে আঘাত হানে, কিন্তু বেল পড়েনি। ভাগ্যবান অধিনায়ক করুনারত্নে অপ্রত্যাশিতভাবে বেঁচে যান। তবে শ্রীলংকার বাজে ব্যাটিংয়ের এই দিনে অপরাজিত ৫২ রান করেন।
দলের বাজে পারফর্মেন্সে একক লড়াইয়ের কারণে অধিনায়ক করুণারত্ন তোপের মুখে পড়া থেকে রক্ষা পান।
প্রসঙ্গত, নিউজিল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পায়নি শ্রীলংকা। ব্যাটে বলে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেননি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস-লাসিথ মালিঙ্গারা। ম্যাট হেনরি ও লুকি ফার্গুনসনের বোলিং তাণ্ডবে ২৯.২ ওভারে ১৩৬ রানে অলআউট হয় শ্রীলংকা।
শনিবার ইংল্যান্ডের কার্ডিফে ১৩৭ রানের মামুলি টার্গেট তাড়া করতে নেমে মাত্র ১৬.১ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। দলের হয়ে অসাধারণ ব্যাটিং করন দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও কলিন মুনরো। তাদের কল্যাণে জোড়া ফিফটিতে ১০ উইকেটের বড় জয় পায় নিউজিল্যান্ড। দলের জয়ে ৭৩ রান করেন গাপটিল। আর ৫৮ রান করেন কলিন মুনরো।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
শ্রীলংকা: ২৯.২ ওভারে ১৩৬/১০ (করুনারত্নে ৫২*, কুশল পেরেরা ২৯, থিসেরা পেরেরা ২৭; হেনরি ৩/২৯, ফার্গুনসন ৩/২২)।
নিউজিল্যান্ড: ১৬.১ ওভারে ১৩৭/০ (মার্টিন গাপটিল ৭৩*, কলিন মুনরো ৫৮*)

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে