যে কারণে দলে নেই মোস্তাফিজ-ইমরুল

0
6

পেস আক্রমণে মোস্তাফিজুর রহমান বরাবরই দলের অটোমেটিক চয়েজ। তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিতে ওপেনিংয়ে সাদমানের সঙ্গী হিসেবে অভিজ্ঞ ইমরুল কায়েসকেও প্রথম পছন্দ ধরে রেখেছিলেন নির্বাচকরা। কিন্তু আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের জন্য ১৫ সদস্যের দলে দেখা গেল না দুজনের কারোরই নাম। কারণটা কি?

মোস্তাফিজ-ইমরুলের না থাকার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে ব্যাখ্যা দিলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। জানালেন, তাদের উপেক্ষা করা হয়নি, বরং দলে থাকার মতো অবস্থায় ছিলেন না তারা কেউই।

মোস্তাফিজের সমস্যা চোট। কন্ডিশনিং ক্যাম্প চলার সময়ই পিঠে ব্যথা পেয়েছেন কাটার মাস্টার। সেই ব্যথার কারণেই তাকে নিয়ে সতকর্তা। প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘কন্ডিশনিং ক্যাম্পে পিঠে ব্যথা পেয়েছে মোস্তাফিজ, তবে সেটা সেভাবে আমলে নেয়া হয়নি। গতকাল (বৃহস্পতিবার) সমস্যাটা ভালোমতো খেয়াল করা গেল। যেহেতু একটি মাত্র টেস্ট, এরপর সাদা বলে তিনজাতি টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং সামনে ভারত সফর আছে, তাই মোস্তাফিজকে নিয়ে আমরা কোনো ধরনের ঝুঁকি নিতে চাই না।’

ইমরুল কায়েসের অবশ্য চোট সমস্যা নেই। তার ছেলে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত। ছেলেকে নিয়েই এখন দৌড়াদৌড়ি করতে হচ্ছে অভিজ্ঞ এই ওপেনারকে। ফলে ক্যাম্পে থাকা খেলোয়াড়রা দুই দলে ভাগ হয়ে যে প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলছেন, তাতেও নেই তিনি।

নান্নু বলেন, ‘ইমরুল কায়েসের ছেলের ডেঙ্গু। তামিমের বিকল্প হিসেবে সে-ই ছিল আমাদের প্রথম পছন্দ। কিন্তু ছেলেকে নিয়ে এখন খুব ঝামেলায় আছে সে। প্র্যাকটিস ম্যাচও খেলতে পারেনি।’

ইমরুল না থাকায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে সাদমান ইসলামের সঙ্গে ওপেনিংয়ে খুব সম্ভবত দেখা যাবে সৌম্য সরকারকেই। লিটন কুমার দাসেরও ওপেনিংয়ের অভিজ্ঞতা আছে। তবে যদি বিশেষজ্ঞ উইকেটরক্ষক হিসেবে খেলেন, সেই সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে