ভারত সফর অনিশ্চিত তামিমের

0
7

ভারত সফরের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগটি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। এতে বাড়তি গুরুত্ব দিয়েছিলেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। কিন্তু এবার তারই ভারত সফর হয়ে পড়েছে অনিশ্চিত।

ব্যর্থতাপূর্ণ বিশ্বকাপ কাটানোর পর শ্রীলঙ্কা সফরেও কূল-কিনারা খুঁজে পাননি তামিম। যার ফলে ক্রিকেট থেকে স্বেচ্ছা বিরতি নিয়েছিলেন তিনি। ইচ্ছে ছিলো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন ভারত সফরের মধ্য দিয়ে। সে লক্ষ্যেই নিজেকে তৈরি করতে জাতীয় লিগটা গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু প্রথম রাউন্ড খেলার পর, দ্বিতীয় রাউন্ডের আগে অনাকাঙ্ক্ষিত ইনজুরিতে পড়ে যান তামিম। যে কারণে খেলতে পারেননি সে রাউন্ডের ম্যাচে। তখন জানা গিয়েছিল ইনজুরির মাত্রা খুব একটা গুরুতর নয় তামিমের। কিছুদিনের মধ্যেই ফিরতে পারবেন মাঠে।

হঠাৎ করেই আজ জানা গেল, এখনও সারেনি তামিমের ইনজুরি। তার ব্যথার ধরণ একটু জটিল হওয়ায় এটি সুস্থ্য হতে সময় লাগে একটু বেশি। এটি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় দলের প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী।

সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘তামিমের ইনজুরিটা আমরা দেখেছি, পর্যবেক্ষণ করেছি। তার যেহেতু পাজরে একটা ইনজুরি আছে তাই এটা সারতে এটু সময় লাগে। আপাতত তামিমকে ব্যথা বাড়ে এমন কাজ করতে নিষেধ করা হয়েছে। শুক্রবার ক্যাম্পে যোগ দিলে আবার দেখতে পারবো তামিমকে। এরপর আমরা ওর পরবর্তী মুভমেন্টাটা ঠিক করবো ওকে রেস্ট দেবো নাকি অনুশীলন চালিয়ে যেতে পারবে।’

পাজরের ব্যথা বেশি হলে ভারত সফরে তামিম থাকবেন কি না সেই প্রশ্নে বিসিবি’র চিকিৎসক বলেন, ‘আমরা শেষবার যখন ওর অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেছিলাম, তখন ওর ব্যথা ছিল এবং ব্যাটিং করার মতো ফিট ছিল না। এসব ক্ষেত্রে সাধারণত চার-পাঁচ দিনে ব্যথাটা কমে যায়। শুক্রবার ক্যাম্পে আসলেই মূলত পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া যাবে। ব্যথা বেশি হলে প্রথম কিছু দিনের জন্য ওকে একটু সতর্ক থাকতে হবে। ব্যথা একেবারে না কমলে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনায় যেতে হবে। তখন ভারতের বিপক্ষে সিরিজ না খেলারও সম্ভবনা রয়েছে।’

এদিকে ইনজুরির মাত্রা কমে গেলেও, ভারত সফরের শুরুর অংশ মিস করতে পারেন তামিম। যা মূলত তার পারিবারিক কারণে। দ্বিতীয়বারের মতো সন্তানসম্ভবা তামিম ইকবালের সহধর্মিনী আয়েশা ইকবাল। তার পাশে থাকার জন্য ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজ মিস করতে পারেন তামিম।

জানা গেছে, স্ত্রীর শারীরিক অবস্থা বোঝার জন্য ডাক্তারি পরীক্ষানিরীক্ষা করা হয়েছে। যেসব পরীক্ষার রিপোর্টের ওপরই নির্ভর করছে তামিমের সামনের দিনগুলোর কার্যপরিকল্পনা।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ভারত সফরে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে পুরোটা সময়ই থাকবেন তামিম। অন্যথায় স্ত্রীর শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় ব্যাংককে কিছুদিন পরিবারের সঙ্গে কাটিয়ে টেস্ট সিরিজের আগে দলে যোগ দিতে পারেন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে