সুপার লিগে টাইগার যুবারা

0
33


সুপার লিগে টাইগার যুবারা

দক্ষিণ আফ্রিকায় চলমান অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত শুরু করেছে টাইগার যুবারা। নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে টানা ২ জয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে সি গ্রুপ থেকে প্রথম দল হিসেবে সুপার লিগের খেলা নিশ্চিত করল বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয়ের পর গতকাল স্কটল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারায় আকবর বাহিনী।
দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রমের উইট্রান্ড ক্রিকেট মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় স্কটল্যান্ড। রকিবুল হাসানের ঘূর্ণিবলে বিভ্রান্ত হয়ে ৩০.৩ ওভারে ৮৯ রানে অলআউট হয় স্কটিশরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন উইজার শাহ। বাংলাদেশ দলের হয়ে ৫.৩ ওভারে ২০ রানে হ্যাটট্রিকসহ ৪ উইকেট শিকার করেন রকিবুল। যুবা দলের হয়ে প্রতিভাবান বাঁহাতি স্পিনার রাকিবুল ইনিংসের ২৪তম ওভারের তৃতীয়, চতুর্থ এবং পঞ্চম বলে তিন উইকেট তুলে নেন। এরপর শিকার করেন স্কটল্যান্ডের শেষ ব্যাটসম্যান সাইরনকে। চলতি আসরে প্রথম হ্যাটট্রিক করা ১৭ বছর বয়সী এই স্পিনারের হাতেই উঠেছে ম্যাচ সেরার পুরস্কার। এ ছাড়া দুটি করে উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম ও তানজিম হাসান সাকিব।
এর আগে শুরুতে দুই পেসার তানজিম হাসান সাকিব এবং শরিফুল ইসলামের তোপে পড়ে স্কটল্যান্ড। শুরুর ২১ রানেই তারা তুলে নেন স্কটিশদের ৪ উইকেট। সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি তারা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন উজায়ের শাহ। এ ছাড়া স্কটল্যান্ডের ওপেনার আঙ্গুস গাই করেন ১১ রান। দশম ব্যাটসম্যান হিসেবে নামা জেমি স্ট্রুয়ান সাইরন ১৭ রান করেন। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে তানজিম সাকিব এবং শরিফুল ইসলাম যথাক্রমে ২৬ ও ১৩ রানে দুটি করে উইকেট নেন। শামিম এবং মৃত্যুঞ্জয় পান একটি করে উইকেট।
জবাবে ৯০ রানের সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬.৪ ওভারেই জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেন মাহমুদুল হাসান জয়। সহজ লক্ষ্য তাড়ায় বাংলাদেশের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। স্কোর বোর্ডে কোনো রান যুক্ত হওয়ার আগেই বিদায় নেন ওপেনার তানজিদ হাসান। এরপর দলীয় ৩৫ রানের মধ্যে বিদায় নেন শামিম হোসান (১০) ও ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমনও (২৫)। শুরুতে ৩ উইকেট হারানোর ধাক্কা সামলে নেন তৌহিদ হৃদয় ও মাহমুদুল হাসান জয়। দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়ার মুহূর্তে ৪৮ রানে ৩৫ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন জয়। আর ২৭ বলে ১৭ রানে অপরাজিত থাকেন হৃদয়।
বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ আগামী ২৪ জানুয়ারি পাকিস্তানের বিপক্ষে। সেই ম্যাচে জয় পেলে সি গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।
ওদিকে বাংলাদেশের গ্রুপ সঙ্গী পাকিস্তানও নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৭ উইকেটে জিতেছে। আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামবে পাকিস্তান।

এসএইচ



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে