চালকের আসনে বাংলাদেশ

0
55


চালকের আসনে বাংলাদেশ


মিরপুরে একমাত্র টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ। মুশফিকুর রহিমের দ্বিশতকের সঙ্গে মুমিনুলের সেঞ্চুরিতে ৬ উইকেটে ৫৬০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে ২৯৫ রানে এগিয়ে যায় টাইগাররা। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে বসে জিম্বাবুয়ে। দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ৯/২। ৮ উইকেট হাতে নিয়ে ২৮৭ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারিরা। চতুর্থ দিনে ইনিংস পরাজয় এড়াতে খেলবে জিম্বাবুয়ে।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে জিম্বাবুয়ে। স্কোরবোর্ডে কোনো রান না ওঠতেই ইনিংসের প্রথম ওভারের প্রথম ও দ্বিতীয় বলে ওপেনার প্রিন্স মাসাভাউরে ও ডোনাল্ড ট্রিপানোকে গোল্ডেন ডাক উপহার দিয়ে হ্যাটট্রিকের সুযোগ জাগিয়ে তোলেন নাঈম হাসান।

এর আগে টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয়বারের মতো ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পান মুশফিকুর রহিম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্টে ব্যাটিংয়ে নেমে তৃতীয় দিনে ৭ম টেস্ট সেঞ্চুরি উদযাপন করেন মুশফিক। দাপুটে ব্যাটিংয়ে শতককে ডাবল সেঞ্চুরিতে পরিণত করেন তিনি।

এইন্সলে এনদুলুভুর করা ১৫৩ ওভারের দ্বিতীয় বলে চার মেরে ডাবল সেঞ্চুরি করেন ‘মিস্টার ডিপেন্ডবল।’ তার অপরাজিত ইনিংসটি ৩১৮ বলে ২৮ চারে ২০৩ রানের সাজানো ছিল। মুশফিকের ডাবল সেঞ্চুরির পর ১৫৪ ওভারে ৬ উইকেটে ৫৬০ রান নিয়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। টাইগাররা লিড নিয়েছে ২৯৫ রানের।

এর আগে দলীয় ৩৯৪ রানে দিনের প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ ধরে মুমিনুল হককে ফেরান এনদুলুভু। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে প্রায় ১ বছর ৩ মাস এবং ১৪ ইনিংস পর টেস্ট ক্যারিয়ারের ৯ম সেঞ্চুরি তুলে নেন মুমিনুল। টাইগারদের মধ্যে লাল বলের ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি এখন তার। বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়কের ২৩৪ বলে ১৩২ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৪ চারে। মুমিনুল ফেরার পর বড় ইনিংস খেলার আভাস দিলেও ২৩ বলে ৩ চারে ১৭ রান নিয়ে এইন্সলে এনদুলুভুর দ্বিতীয় শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরে যান মোহাম্মদ মিথুন। তবে জোড়া ধাক্কা সামলে দাপটের সঙ্গে ব্যাট করেন মুশফিক।

তাকে সঙ্গ দেন লিটন দাস। সিকান্দার রাজার চলে রেগিস চাকাবার গ্লাভসে বন্দী হওয়ার আগে ফিফটি তুলে নেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। লিটনের ৯৫ বলে ৫৩ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৫ চারে। ২৫ রানে পিছিয়ে থেকে তৃতীয় দিন শেষ করে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিন প্রথম ইনিংস শুরু করে নাজমুল হোসেন শান্ত ও অধিনায়ক মুমিনুল হকের ফিফটিতে ৩ উইকেটে ২৪০ রান করে দিন শেষ করে টাইগাররা। জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২৬৫ রানে।

এসএইচ



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে