লালকার্ড দৃঢ় করেছিল রোনালদো-রুনির বন্ধুত্ব

0
23


লালকার্ড দৃঢ় করেছিল রোনালদো-রুনির বন্ধুত্ব

২০০৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলতে নামে ইংল্যান্ড ও পর্তুগাল। সেই ম্যাচটিতে পর্তুগালের রিকার্দো কারভালহোকে পা দিয়ে পাড়া দেন ইংল্যান্ডের ওয়েন রুনি। আর এটি দেখার পর দৌড়ে রেফারির কাছে গিয়ে লাল কার্ডের আবেদন করেন রোনালদো। আর ঠিক তখনই রোনালদোকে ধাক্কা দিয়ে বসেন রুনি। এরফলে রুনিকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন রেফারি। সেই লাল কার্ডের ঘটনাই রোনালদোর সঙ্গে বন্ধুত্ব দৃঢ় করেছিল বলে জানিয়েছেন রুনি।

২০০৩ সালে রোনালদো যোগ দেন ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে। ওই সময় ইউনাইটেডে খেলতেন রুনিও। ফলে দুজনের মধ্যেই জানা শোনাটা বেশ ভালো ছিল। কিন্তু বিশ্বকাপে দুজন ভাগ্যক্রমে কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হন। ম্যাচ ঠিক মতোই চলছিল। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধ শুরু হওয়ার একটু পরেই লাল কার্ডের ঘটনাটি ঘটে। রোনালদো যখন রুনিকে লাল কার্ড দেখানোর জন্য আবেদন করছিল তখন তা ক্ষিপ্ত করে তোলে রুনিকে।

এ ব্যপারে রুনি বলেন, ‘আমি দেখলাম রোনালদো দৌড়ে রেফারির কাছে আসল। আর আমার বিপক্ষে লাল কার্ডের জন্য আবেদন করছে। আমি মনে মনে ভাবছিলাম আরে ও করছেটা কি। এজন্য তাকে আমি ধাক্কা দিয়ে বসি’।

তিনি আরো বলেন, ‘রিকার্দো আমাকে পেছন থেকে টানছিল। কিন্তু রেফারি কিছু বলছিল না। তাই আমি তাকে পাড়া দেই। রুনি আরো বলেন, ‘ম্যাচ শেষে আমি ও রোনালদো টানেলে কথা বলি। রোনালদোকে দেখে মনে হচ্ছিল সে কিছুটা দুঃখিত। ঐ ম্যাচ শেষে অনেকে বলছিল আমার আর রোনালদোর মধ্যে সমস্যা রয়েছে। কিন্তু বাস্তব হলো ওই লাল কার্ড আমার আর ওর বন্ধুত্ব আরো দৃঢ় করেছিল।

ওই ম্যাচটিতে শেষ হাসিটা হাসে রোনালদোর পর্তুগালই। তারা কোয়ার্টারে ইংল্যান্ডকে পেনাল্টি শটে ৩-১ গোলে হারিয়ে সেমির টিকেট পায় রোনালদোরা।

এমএইচ



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে