করোনামুক্ত সাবেক ক্রিকেটার আশিক

0
25


করোনামুক্ত সাবেক ক্রিকেটার আশিক

করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ১২ মে মুগদা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়েছিলেন বাংলাদেশ যুব (অনূর্ধ-১৯) দলের হয়ে ২০০২ সালের যুব বিশ্বকাপ খেলা আশিকুর রহমান মজুমদার। অবশেষে সুস্থ হয়ে উঠেছেন এ সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ। আজ (শুক্রবার) বেলা ১২টায় হাসপাতালে থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন আশিক।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার পর মহান সৃষ্টিকর্তার ওপর বিশ্বাস ও আস্থাটা প্রথম থেকেই ছিল প্রবল। বারবার বলেছেন, ‘আল্লাহ যেন আমাকে সুস্থ করে দেন। আমি সুস্থ হলে মানুষের সেবা করতে চাই। অসহায় ও দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই।’

হাসপাতাল থেকে ছুটি পাবার পর গণমাধ্যমকে করোনামুক্ত আশিক সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমি মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তার দয়া ও কৃপায় সুস্থ হয়ে উঠেছি। এখন আর তেমন সমস্যা নেই। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নেই। তবে কাশিটা পুরোপুরি সাড়েনি। আছে এখনও। এর বাইরে অন্যকোন সমস্যা নেই। কাশির জন্য চিকিৎসকরা বুকের এম আর আই করাতে বলেছেন।

গত ১২ মে (মঙ্গলবার) করোনা পজিটিভ হওয়ার পর হাসপাতালে ভর্তি হন আশিক। তার চিকিৎসায় বিসিবি এবং ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার্স এসোসিয়েশন প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সাহায্য সহযোগিতা করেছে।

শুরুতে জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেও ধীরে ধীরে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট মুক্ত হয়েছেন আশিক। তবে কাশিটা এখনও পুরোপুরি সাড়েনি। আজ ১৮ দিনের মাথায় বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন তিনি।

ক্রিকেট ক্যারিয়ারে জাতীয় যুব (অনূর্ধ-১৯) দলের হয়ে ২০০২ সালের যুব বিশ্বকাপ খেলা আশিক ছিলেন সম্ভাবনাময় পেসার। ঢাকা মোহামেডানের হয়ে চলতি শতাব্দীর প্রথম দিকে কয়েকবছর বেশ সুনামের সঙ্গে খেলেছেন। পরে পিঠের ব্যথার কারণে একটু আগেই খেলা ছেড়ে কোচিংয়ে নাম লেখান। প্রাইম ব্যাংকের সহকারী কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন অন্তত ৫-৬ বছর ধরে। মাঝে প্রায় দুই বছর বাংলাদেশ নারী দলের সহকারী কোচ হিসেবেও কাজ করেছেন আশিক।

পিআর



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে