অনুশীলনে ফিরলেন সৌম্য সরকার

0
26


অনুশীলনে ফিরলেন সৌম্য সরকার

বিসিবির ব্যবস্থাপনায় দ্বিতীয় ধাপের অনুশীলনে প্রথমবারের মে আজ যোগ দিয়েছেন জাতীয় দলের ২ ওপেনার সৌম্য সরকার ও সাদমান ইসলাম। তারা মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে বেশ কিছুক্ষণ রানিং করা ছাড়াও ব্যাটিং অনুশীলন করেন। যদিও সৌম্য সরকারের অনুশীলন করার কথা ছিল গত পরশু ৯ আগস্ট। কিন্তু গ্রামের বাড়ি থেকে সময়মতো ঢাকায় ফিরতে না পারায় ওইদিন অনুশীলন করতে পারেননি তিনি।

সোমবার ( ১০ আগস্ট) সূচি অনুযায়ী মিরপুরে এসে ঘাম ঝড়িয়েছেন মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন ও এনামুল হক বিজয়। এর মধ্যে অনুশীলনের শুরুটা করেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাত মুশফিকুর রহিম। তার সঙ্গে অনুশীলনে নামেন টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক। সকাল ৯টার দিকে এসে আগে ইনডোরে নিজের ব্যাটিংকে ঝালিয়ে নেন মুশফিকুর রহিম। ব্যাটিং অনুশীলন শেষ করার পর সকাল ১০টার দিকে মূল মাঠে রানিং করেন তিনি। এরপর জিমে অনুশীলন করে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে ফিরে যান মুশি। যেহেতু মুশফিকুর রহিম আগে ব্যাটিং অনুশীলন করেছেন তাই মুমিনুল হক আগে মাঠে রানিং করারসহ আনুষঙ্গিক অনুশীলন সাড়েন।

এরপর তিনি যান জিমে। এরপর মুশফিক ব্যাটিং শেষ করে বের হলে ইনডোরে ব্যাটিং প্র্যাকটিসে নেমে পরেন অধিনায়ক মুমিনুল। তিনিও দীর্ঘক্ষণ অনুশীলন করেন। তাছাড়া সূচি অনুযায়ী অনুশীলন করেছেন মোহাম্মদ মিঠুন। তবে নির্ধারিত সূচির আগেই অনুশীলনে নেমে পরেন এনামুল হক বিজয়। অন্যদিকে বোলারদের মধ্যে অনুশীলন করার কথা ছিল শফিউল ইসলাম, আল আমিন হোসেন, স্পিনার তাইজুল ইসলাম ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। তারা প্রত্যেকেই নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী অনুশীলন করে গেছেন।

বর্তমানে খেলোয়াড়রা ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনুশীলন করলেও কদিন বাদে বিসিবির অধীনে আয়োজন করা হবে অনুশীলন ক্যাম্পের। কারণ সামনেই শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে টাইগাররা। সেই সফরে যারা যাবেন তাদের নিয়ে আয়োজিত হবে এই ক্যাম্প। আর এ অনুশীলন শুরু করার আগে ক্রিকেটারদের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী। এ ব্যাপারে প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘জাতীয় দলের সম্ভাব্য খেলোয়াড়দের নিয়ে কোভিড-১৯ ওয়েল বিং নামের একটা অ্যাপসের অধীনে নিয়ে আসা হয়েছে। এই অ্যাপসের মাধ্যমে তাদের স্বাস্থ্যের অবস্থা সরাসরি পর্যবেক্ষণ করছে আমাদের মেডিকেল বিভাগ। যখনই আমরা ক্যাম্পের বিষয়ে চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব তাদের আমরা আইসোলেশনে রেখে কোভিড টেস্টটা করাব। তারপর তাদের আবাসিক ক্যাম্পের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়েও যেন বাংলাদেশ দল বেশ ভালোভাবে অনুশীলন সারতে পারে সে ব্যাপারে কথাবার্তা চলছে বলে জানিয়েছেন ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান। তিনি জানিয়েছেন সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ শুরু হতে পারে। বিসিবি চিন্তা করছে সিরিজ শুরু হওয়ার ১ মাস আগে বাংলাদেশ দলকে সেখানে পাঠিয়ে দেবে। আর টাইগাররা সেখানে পৌঁছানোর ২-৩ দিন পরই যেন অনুশীলন শুরু করতে পারে সে ব্যাপারে শ্রীলঙ্কার বোর্ডের সঙ্গে এখন আলোচনা করে যাচ্ছে।

এসআর



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে