অব্যবস্থাপনা ও বিশৃঙ্খলায় ঈদে বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু

0
144

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: আগামী ১১ অথবা ১২ আগস্ট সম্ভাব্য ঈদুল আজহা। এ উপলক্ষে বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। শুক্রবার সকাল থেকে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলগামী বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। টিকিট বিক্রির প্রথম দিনে সকাল থেকে বৃষ্টির থাকায় দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন টিকিটপ্রত্যাশীরা।

শুক্রবার দেওয়া হচ্ছে ৫ আগস্ট থেকে ১১ আগস্ট পর্যন্ত ঈদযাত্রার টিকিট। তবে গাবতলী, মাজার রোড, কল্যাণপুরসহ বিভিন্ন বাসের কাউন্টার ঘুরে দেখা গেছে ৮, ৯ ও ১০ আগস্টের টিকিটের চাহিদা সবচেয়ে বেশি।

সকাল থেকেই টিপটিপ বৃষ্টিতে বাইরে টিকিট প্রত্যাশীদের ভোগান্তি লক্ষ্য করা গেছে। শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হলেও প্রথম দিকে তেমন একটা চাপ লক্ষ্য করা যায়নি। তবে বেলা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে টিকিট প্রত্যাশীদের চাপ বাড়বে বলে আশা করছেন বাস কাউন্টারগুলো।

তবে টিকিট প্রত্যাশীদের অভিযোগ খুবই ধীরগতিতে টিকিট ছাড়ছে পরিবহন কর্তৃপক্ষ। তারা বলছেন, অব্যবস্থাপনা ও বিশৃঙ্খলায় বিক্রি হচ্ছে টিকিট। ১০ মিনিট পর পর একটি করে টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। কালোবাজারে আগাম টিকিট বিক্রি করছেন একাধিক টিকিট বিক্রয় কর্মী বলেও অভিযোগ করেন অনেক টিকিট প্রত্যাশী। তারপরেও তাদের সবার লক্ষ্য একটাই, তাদের কাঙ্ক্ষিত টিকিট অর্জন করা।

এদিকে বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের পূর্ব নির্ধারিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শুক্রবার সকাল থেকে রাজধানীর তিনটি আন্তঃজেলা বাস ট্রার্মিনালে একযোগে বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শুধু মাত্র গাবতলী ও কল্যাণপুর থেকে যথাসময়ে টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। কিন্তু মহাখালী বাস টার্মিনালে সকাল ১০ টা নাগাদও টিকিট বিক্রি শুরু হয়নি।

অগ্রিম টিকিট বিক্রি সম্পর্কে বাংলাদেশ বাস ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান রমেশ চন্দ্র ঘোষ নিউজ টাঙ্গাইলকে জানান, আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে বাস ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে শুক্রবার সকাল থেকে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলগামী বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রির সিদ্ধান্ত হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে।

খুলনা, বরিশালসহ উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলগামী বাসের অগ্রিম টিকিট গাবতলী এবং কল্যাণপুরের কাউন্টার থেকে পাওয়া যাচ্ছে। পাশাপাশি অনলাইনেও টিকিট পাওয়া যাবে।

রমেশ চন্দ্র ঘোষ আরো জানান, বরাবরের মতো এবারও সরকার নির্ধারিত দামেই টিকিট বিক্রি হবে। টিকিট বিক্রি মনিটরিং করা হবে। কেউ যেন নির্ধারিত ভাড়ার বেশি নিতে না পারে, সেজন্য বাস কোম্পানিগুলোকে দূরত্ব অনুযায়ী ভাড়ার তালিকা টাঙিয়ে দিতে বলা হয়েছে। কেউ যদি নির্ধারিত ভাড়ার বেশি ভাড়া নেন, প্রমাণ সাপেক্ষে অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে ঈদুল আজহা উপলক্ষে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে আগামী ২৯ জুলাই। অগ্রিম টিকিট বিক্রি চলবে ২ আগস্ট পর্যন্ত। যাত্রীদের সুবিধার্থে পাঁচটি স্থান থেকে রেলের অগ্রিম টিকিট বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে