করোনার সামান্য লক্ষণে আমাদের করনীয়………ডা. রুনা লায়লা

0
53


করোনার সামান্য লক্ষণে আমাদের করনীয়………ডা. রুনা লায়লা

করোনার সামান্য লক্ষণ দেখা দিলে কি কররেন ?
করোনা ভাইরাসের লক্ষণ খুুবই সামান্য:  যেমন শুধুজ্বর, হালকা কাশি, মাথা ব্যথা এবংঅল্পকিছুদিন পর তা ভাল হয়েছে তবে তার টেষ্টে করার প্রয়োজন নাই। শ্বাসকষ্ট এবং অনেক দিন যাবত জ্বর ,গলা স্বরপরিবর্তন হয়ে যাওয়া, ডায়রিয়া ইত্যাদি হলে জরুরী ভিত্তিতে করোনার টেষ্ট করার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইন ৩৩৩ বা  ১৩২৬৩ নম্বরে ফোন করতে হবে।
আমাদের করনীয় কী ?
 জ্বর, হালকাকাশি, মাথাব্যথা ও গলাব্যথা হলে করনীয় : প্রথমেই বাসার অন্যদের থেকে একটু আলাদা থাকতে হবে ।
 সম্ভব হলে আলাদা রুমে থাকতে হবে এবং আলাদা বাথরুম ব্যবহার করতে পারলে ভাল হয়। সম্ভব না হলে, প্রতিবার বাথরুম ব্যবহার করার পর জীবানুমুক্তকরণ ঔষধ ব্যবহার করতে হবে , বাথরুম করার পর ঢাকনা বন্ধ করে বাথরুমের ফ্লাস করতে হবে এবং ঠান্ডাকাশিতে আক্রান্ত ব্যক্তির বাথরুম ব্যবহার করার ৩০ মিনিট পর অন্যরা বাথরুম ব্যবহার করতে হবে।
 যিনি খাবার পরিবেশন ও ঘর পরিষ্কারের দায়িত্বে থাকবেন উনি মাস্ক ব্যবহার করবেন এবং প্রতিবার খাবার পরিবেশনের পর হাত সাবান পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধুয়ে ফেলতে হবে।
 রোগীর ব্যবহার্য জিনিসপত্র রোগীর নিজেই পরিষ্কার করা সবচাইতে ভাল এবং রোগী নিজের কাপড় কমপক্ষে ৩০ সেকেন্ড ডিটারজেন্টে ভিজিয়ে রেখে তারপর ধুয়ে ফেলতে হবে।

কত দিন আলাদা থাকতে হবে ?
 ঠাণ্ডা -কাশি ও জ্বর ভাল না হওয়া পর্যন্ত ।
আর কী কী করতে হবে ?
১।  হাত ঘনঘন সাবান পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধুতে হবে
২। সামাজিক দূরত্ব কমপক্ষে  (৩ফিট ) মেনে চলতে হবে
৩।  হাঁচি-কাশির সময় টিসু ব্যবহার করতে হবে । হাতের কাছে টিসু না থাকলে রুমাল ব্যবহার করতে পারেন। হাতের কাছে একে বারেই কিছু না থাকলে কনুইয়ের ভাঁজে কাশি দিতে হবে ।
৪। টিসুমাস্ক নির্দিষ্ট ঢাকনা যুক্ত বিনে ফেলতে হবে ।
৫। অন্যের সঙ্গে কথা বলার সময় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।
৬।  ব্যবহার্য জিনিসপত্র প্রতিদিন সাবান পানিতে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে তারপর পরিষ্কার করে এবং রোদে শুকিয়ে ব্যবহার করতে হবে ।
৭। গরমপানিতেলবণদিয়েদিনেকয়েকবারগড়গড়াকরতেহবে।
ক্স বাথরুমকরার পর বাথরুমেরফ্লাসেরঢাকনাবন্ধকরেফ্লাসকরতেহবে।
ক্স ঘরেরচারিপাশ, আসবাবপত্র প্রতিদিন পরিষ্কার করতেহবে।
ক্স হালকাব্যায়ামকরতেহবে যেমনশ্বাসেরব্যায়াম – সকালে ৫ সেকেন্ড , বিকালে ৫ সেকেন্ড, রাতে ৫ সেকেÐকরতেহবে।
ক্স মুসলমানগন দৈনিক ৫ বারনামাজআদায়করতেহবে।
ক্স সৃষ্টিকর্তাকে বেশি বেশিমনেকরতেহবেএবংমন থেকে ভয়একেবারে দূরকরে ফেলতেহবে।
কীকী খেতে হবে ?
ক্স ভরা পেটেগরমপানিতে লেবুররস ,আদা, লবঙ্গ দিয়েফুটিয়ে ১ঘন্টা পর পরপানকরতেহবে
ক্স গরমগরমলালচা খেতে হবে
ক্স কিছুনা থাকলে ১ ঘন্টা পর পরশুধুগরমপানিপানকরতেহবে
ক্স দিনেকমপক্ষে ২-৩ বারগরমপানিরভাপনিতেহবে
ক্স দিনে যে কোনসময় (সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৩ট পর্যন্ত) কমপক্ষে ১০-১৫ মিনিটশরীরে সূর্যেরআলোলাগাতেহবে
ক্স পুষ্টিকরখাবার যেমন – মাছ, মাংস,ডিম দুধ ,সবুজশাকসবজি ,ফলমূল, ডাল,বাদাম খেতে হবে
ক্স কালোজিরা, গোলমরিচ,মধু,তুলসীপাতাররস,লেবু ও লেবুর খোসা খেতে পারেন
ক্স আনারস,পেঁয়ারা,কমলালেবু,আমলকী খেতে হবে।
ক্স রান্নারসময়কীকরতেহবে ?
ক্স রান্নাকরারসময়ভাতেরমাড় ফেলবেননা ।
ক্স খাবারভালভাবেকরেরান্নাকরতেহবে।
কীখাওয়াযাবেনা ?
ক্স ঠান্ডাখাবার
ক্স কাঁচাখাবার যেমনটমেটোসালাদ, কাঁচাশসাইত্যাদি
ক্স ভাঁজা-পোড়াখাবার ফাস্ট ফুড
ক্স চিনিযুক্ত খাবার
ক্স আধা সেদ্ধ খাবারখাওয়াযাবেনা।
চিকিৎসা:
সামান্য লক্ষনেরজন্য উপসর্গ ভিত্তিকচিকিৎসানিতেহবেযমেনশুধুজ্বর, হালকা কাশি,মাথাব্যথা, গলাব্যথারজন্য যাকরতেহবে।এ ওষধগুলোকে (ঙঞঈ) যে ওষধ বাসারপাশেরফার্মেসীতেপাওয়াযায়তাকেওভার দা কাউন্টারড্রাগবলে। সেইজাতীয় ওষধ কিনে খেতে হবে।
ক্স জ¦র মাথাব্যথা ঞধন ঘধঢ়ধ ঊীঃৎধ ৫০০ সম / অপব চষঁং ৫০০ / ঘধঢ়ধ ঢজ ৬৬৫ সম যে কোনএকটি ওষধ শরীরেরওজনওনুযায়ী ৩-৪ বার খেতে হবেজ্বরযতদিন থাকবে।যদি লিভারের / যকৃতের কোনসমস্যানা থাকে।
ক্স শরীরে খুব বেশিজ্বর থাকলে (ঝঁঢ়ঢ়ড়) জ্বর>১০১)০ঋউপরে থাকলেপায়খানাররাস্তায়ব্যবহারকরতেহবেতবে খুব বেশিব্যকহারকরাযাবেনা।
ক্স হালকাঠান্ডা-কাশিঞধন অষধঃৎড়ষ ১০ সম/ঞধন উবংষড়ৎ ৫ সম- ২ বারখাবেন / ঞধন ঋবীড় ১২০ সমদিনে ১ বারখাবেন সাথে ৫ দিনখাবেন
ক্স কাশিঝুঢ়অসনৎড়ী / ঝুঢ়গরৎধশড়ভ –চাচামচ ২ বার ৭ -১০ দিন খেতে হবে।
ক্স ডায়রিয়াঞধন ঋষধমুষ ৪০০ সম / ঞধহ গবঃৎড় ৪০০ সম – ৩ বারখাবেনএবংঝগঈ ঙজঝপ্রতিবারডায়রিয়ার পর খাবেন।
বেশিসমস্যাহলে যেমনশ্বাসকষ্টএবংঅনেকদিনযাবতজ¦র ,গলার স্বরপরিবর্তনহয়েযাওয়া,ডায়রিয়াঘনঘনহলেইত্যাদি হলেজরুরীভিত্তিতে টেষ্টকরারজন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরেরহটলাইন ৩৩৩ বা ১৩২৬৩ নম্বরে ফোনকরতেহবে ,আপনারসমস্যারজন্য ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগকরতেহবেএবংবিশেষপ্রয়োজনে রোগীকেহাসপাতালেভর্তীকরতেহবে।
আমরাসবাইমিলেএকজন অন্য জনকেসহায়তাকরি ,সবাইমিলেএকসাথে করোনা মেকাবিলাকরিএবংআমাদের দেশ থেকে করোনানির্মূল করি।

ডা. রুনালায়লা
এমবিবিএস,এমপিএইচ,পিজিটি-গাইনী ও অবস্
সি এম ইউ ও ডি এম ইউ- ইউ এস জি
ম্যানেজার ব্র্যাক,এইচআরএবংলার্নিংডিভিশন



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে