ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা সম্পাদক হলেন কিশোরগঞ্জের সোহেল মিয়া

0
49

স্টাফ রিপোর্টারঃবাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কমিটির তালিকা প্রকাশ করা হয়।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানি স্বাক্ষরিত ওই তালিকায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হিসাবে নির্বাচিত হলেন কিশোরগঞ্জর জেলার কটিয়াদীর করগাঁও ইয়উনিয়ন ভাট্টা গ্রামের কৃতি সন্তান সোহেল মিয়া। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন করা হয়েছে।

সোহেল মিয়া ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগের সাংগঠনিকের মত গুরুত্বপূর্ণ পদ পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশের চেয়ে অর্পিত দায়িত্ব আস্থা ও বিশ্বাসের সাথে কাজ করবে বলে আশা ব্যক্ত করেন । বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে মহানগর উত্তর ছাত্রলীগ পরিবার সর্বদা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সকল নিয়ে একত্রে কাজ করার অঙ্গিকার করেন তিনি। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ছাত্রলীগ পরিবার যেকোন ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত। তিনি বলেন বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছেন ত্রিশ লক্ষ মুক্তিযোদ্ধার রক্ত বিনিময়ে তাই আমাদের নতুন প্রজম্ন কে বেশি করে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারন ও লালন করে ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতা কর্মী সোনার গড়ার জন্য কাজ করতে হবে।

সোহেল মিয়া ছাত্র জীবনের শুরু থেকেই দেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয় ভাবে জড়িত।
দীর্ঘ দিন ধরে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সোহেল মিয়া সক্রিয় ভাবে জড়িত আছেন। তিনি ছাত্রলীগের আসন ভিত্তিক কিশোরগঞ্জ -২ জনাব নূর মোহাম্মদ এর পক্ষে নির্বাচন পরিচালনার সমন্বয়কের কমিটিতে সদস্য হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।
এ ছাড়াও বর্তমানে তিনি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটি তে যুগ্ম আহ্বায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সোহেল মিয়ার পিতা করগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতার সদস্য ও সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। তার আপন বড় ভাই করগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। তার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয় ভাবে জড়িত আছেন।

তিনি বৃহত্তর ময়মনসিংহ আইন ছাত্র কল্যাণ পরিষদের ১নং সাংগঠনিক পদেও দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি সামাজিক সংগঠনের সাথে সক্রিয় ভাবে জড়িত আছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী আইন ছাত্র পরিষদের রাজনীতিতে মুজিব আদর্শের একজন একনিষ্ঠ সৈনিক ছিলেন । ক্লিন ইমেজের ছাত্র নেতা হিসেবেই পরিচিত সবার নিকট সোহেল মিয়া।

সোহেল মিয়া মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হওয়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সংগ্রামী সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এর প্রতি চির কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ও তাকে অশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং ভবিষ্যতেও পরিচ্ছন্ন রাজনীতি করে যেতে চান ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালন করে সামনের দিনগুলো মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষনা খাতে কাজ করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য যে, সোহেল মিয়া চট্টগ্রাম কলেজের ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী ছিলেন এবং পদার্থ বিজ্ঞান থেকে বিএসসি অনার্স শেষ করে ঢাকা তিতুমীর কলেজ থেকে এমএসসি মাস্টার্স শেষ করেন। এছাড়াও তিনি ঢাকা সেন্ট্রাল ল’ কলেজ থেকে এলএলবি ডিগ্রি অজর্ন করেন এবং সেন্ট্রাল ল’ কলেজে আওয়ামী আইন ছাত্র পরিষদের রাজনীতির সাথে সক্রিয় ভাবে জড়িত ছিলেন। বর্তমানে তিনি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখার বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের সহ-সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে