তাবিথের ওপর হামলার বিচার চেয়ে ইসিতে চিঠি

0
100


তাবিথের ওপর হামলার বিচার চেয়ে ইসিতে চিঠি

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালে প্রচারণায় হামলায় ঘটনায় নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে বিএনপি। বুধবার (২২ জানুয়ারি) সকালে মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর নেতৃত্বে লিখিত অভিযোগ দেন দলটির নেতারা। লিখিত অভিযোগে ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মুজিব সারোয়ার মাসুম এর প্রার্থিতা বাতিলের দাবি করা হয়।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, আমি (তাবিথ আউয়াল) সিটি করপোরেশন নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ২০১৬ এর বিধান পালন করে নির্বাচনী প্রচারণার জন্য ২১ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৯নং ওয়ার্ড এলাকা তথা কোটবাড়ী, বাজারপাড়া, হরিরামপুর, গোলারটেক, জহুরাবাদ এলাকায় গণসংযোগে যাই। প্রচারণাকালে আমার সঙ্গে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় নেতাকর্মী ও সমর্থক ছিলেন। সেখানে পথসভা পূর্ব নির্ধারণ ছিল যা আইন আইনানুগভাবে সংশ্লিষ্ট দারুসসালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসারকে লিখিতভাবে অবহিত করেছি।

অভিযোগে আরো বলা হয়, আমার পূর্বনির্ধারিত গণসংযোগ অনুষ্ঠানে আমার নির্বাচনী প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আতিকুল ইসলামের পক্ষের নেতাকর্মী সমর্থক ও সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ঠেলাগাড়ি প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী মজিবুর রহমান মাসুম উপস্থিত থেকে স্বয়ং অতর্কিতভাবে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এবং বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় নেতা-কর্মী-সমর্থকদের জঘন্যভাবে আক্রমণ করে। এই ঘটনায় ভাগ্যক্রমে আমরা বেঁচে গেলেও এতে শারীরে ও মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হই, আমার নেতৃবৃন্দ ও কর্মীসমর্থক আহত হন।

তাবিথ আউয়ালের প্রচারণায় হামলার পরে। ফাইল ছবি।

আক্রমণের সময় পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নিক্রিয় থাকে। পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা যদি আইন অনুযায়ী আরো সক্রিয় থাকতো তাহলে এই ধরনের পরিস্থিতির সৃষ্টি হতো না। উচ্ছৃঙ্খল নেতাকর্মী-সমর্থকদের শারীরিক নির্যাতন নিপীড়ন ও জঘন্য আক্রমণসহ এই ধরনের কার্যক্রম সিটি করপোরেশন নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ২০১৬ এর ৭ বিধির (গ) উপ বিধি বিধান চরমভাবে লঙ্ঘিত হয়েছে বলে আমি মনে করি।

তাবিথ আউয়াল আরো অভিযোগ করেন, ঢাকা সিটি করপোরেশনের ৯নং ওয়ার্ডের ঠেলাগাড়ি প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী মুজিব সারোয়ার মাসুম ন্যাক্কারজনকভাবে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এবং আমার কর্মী-সমর্থককে আক্রমণ করে আহত করেছেন। তার উপযুক্ত শাস্তি এবং সিটি করপোরেশন বিধিমালা ২০১৬ এর ৩২ বিধি অনুযায়ী প্রার্থিতা বাতিলের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক শফিকুল হক মিলন।

এনএম



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে