দুদকের মামলায় ইশরাকের নির্বাচনী কাজে বাধা নেই: ইসি সচিব

0
117


দুদকের মামলায় ইশরাকের নির্বাচনী কাজে বাধা নেই: ইসি সচিব

দুর্নীতি দমন কমিশনের করা মামলার আসামি বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেনের নির্বাচনী কাজে কোন বাধা নেই বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর।

বৃহষ্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে নির্দেশনা ছিল কোন প্রার্থী বা তার পক্ষে যদি নির্বাচন পরিচালনা বা সমর্থন করেন তাদের যেন গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করা হয়। কিন্তু ওনার বিরুদ্ধে যে মামলা সেটা পুরনো মামলা। ওটা চললেও তার নির্বাচনী কাজে কোন বাধা নেই।

তিনি বলেন, তার (ইশরাক) বিরুদ্ধে এটা একটা দুর্নীতির মামলা। মামলার বিষয়ে আদালতে শুনানি হয়েছে, এটা আমাদের বা পুলিশের পক্ষ থেকে না। আদালতে শুনানি হয়েছে। এর ফলে তো নির্বাচনের প্রচারণায় কোন বাধা নেই।

সিনিয়র সচিব বলেন, তাকে (ইশরাক) গ্রেপ্তারও করা হচ্ছে না, এমনকি কোন বাধার সৃষ্টিও করা হচ্ছে না। তিনি নির্বাচন করবেন, প্রচারণাও চালাবেন। এটার কারণে নির্বাচন প্রক্রিয়ার কোন বাধা নেই।

প্রসঙ্গত, অবিভক্ত ঢাকার সর্বশেষ মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আগামী ৩০ জানুয়ারি এই নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে। দুদকের এক মামলায় দুই বছর আগে ইশরাকের বাবা বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার দুই বছর সাজা হয়েছিল। ওই রায়ের আগে থেকে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা খোকা কয়েক মাস আগে মারা যান।

সম্পদের তথ্য-বিবরণী চেয়ে দুদক ২০০৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর ইশরাক ও তার বোন সারিকা সাদেককে আলাদা নোটিস দিয়েছিল। নোটিসে তাদের নিজের নামে এবং তাদের উপর নির্ভরশীল ব্যক্তিদের ‘স্বনামে বা বেনামে’ বা তাদের পক্ষে অন্য কোনো নামে অর্জিত যাবতীয় স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ-সম্পত্তির দায়-দেনা, আয়ের উৎসসহ বিস্তারিত বিবরণ সাত কার্যদিবসের মধ্যে জমা দিতে বলা হয়েছিল।

কিন্তু তারা তা না দেয়ায় দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সামছুল আলম ২০১০ সালের ২৯ ও ৩০ আগস্ট রমনা থানায় দুটি মামলা করেন। ইশরাক ও সারিকা দুদকের নোটিস চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করলেও বিফল হন।

এসআর



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে