কৃষক থেকে সরকারি উদ্যোগে ধান কেনার আহ্বান

0
42


কৃষক থেকে সরকারি উদ্যোগে ধান কেনার আহ্বান

আসন্ন বোরো মৌসুমে কৃষকের ধান কাটা-মাড়াই নিশ্চিত করা ও সরকারি উদ্যোগে খোদ কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয়ের বিষয় নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটি।

কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যক্ষ ওয়াজেদ পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশিদ ফিরোজ শনিবার (৪ এপ্রিল) সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে এ দাবি জানিয়েছে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের মোট ধান উৎপাদনের ৬০-৭০ ভাগ উৎপাদন হয় বোরো ধান থেকে। আগামী এক সপ্তাহ পর থেকেই অর্থাৎ পহেলা বৈশাখ থেকে বোরো ধানের কাটা-মাড়াই শুরু হবে। গত বছরের অভিজ্ঞতা বলে বাজারে কৃষকের ধানের ন্যায্য দাম না থাকা, ধান কাটার জন্য পর্যাপ্ত কৃষি শ্রমিক না পাওয়া এবং ধান কাটতে শ্রমিকের মজুরি দিয়ে অন্যান্য সব খরচ মিলে উৎপন্ন ধান বিক্রি করে সে খরচ তুলতে না পেরে দেশের অনেক স্থানে কৃষক মনের দুঃখে ধান ক্ষেতে আগুন ধরিয়ে দেয়ার খবর দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছে। ফলে এবারে যাতে গত বছরের দুঃখজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবার জন্য সরকার, কৃষি মন্ত্রণালয় ও কৃষি বিভাগের প্রতি জোর দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, এমনিতে যেখানে ধান কাটার শ্রমিকের অভাব দেখা দেয় তার মধ্যে এবারে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের আতঙ্ক ঐ সংকটকে আরো বাড়িয়ে দিতে পারে। এ বিষয়টিও গুরুত্বসহকারে সংশ্লিষ্টদের বিবেচনা করা প্রয়োজন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয় গত বছর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ধান কাটার জন্য যন্ত্রের ব্যবহার করার অর্থাৎ হার্ভেস্টিং মেশিন সরবরাহ করার। আমাদের জানা মতে এজন্য একটি প্রকল্পও গ্রহণ করে তার পরিচালকসহ জনবল নিয়োগ ও ৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দও করা হয়। আমাদের জিজ্ঞাস্য ঐ প্রকল্পের বরাদ্দকৃত টাকায় হার্ভেস্টিং এর ব্যাপারে কৃষিমন্ত্রণালয় ও প্রকল্পের উদ্যোগ আয়োজন কি?

বিবৃতিতে বলা হয়, দেশের ৪৬০ উপজেলাার প্রতি উপজেলায় ১০টি করে হার্ভেস্টিং মেশিন সরবরাহ করলে বোরো হার্ভেস্টিং এ সমস্যা হওয়ার কথা নয়। আর ঐ পরিমাণ মেশিন ক্রয়ে দেড় থেকে দুই হাজার কোটি টাকার বেশি লাগার কথা নয়। তাহলে ৩৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ থাকার পরও যদি কৃষি মন্ত্রণালয়, কৃষি অধিদপ্তর যথাযথ উদ্যোগ না নিয়ে থাকে তাহলে তার দায় সংশ্লিষ্টদেরই নিতে হবে।

বিবৃতিতে প্রত্যেক উপজেলায় প্রয়োজনীয় হার্ভেস্টিং মেশিন সরবরাহ করে আমলা ও দলীয় নেতাদের নয়, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে প্রধান করে ক্রিয়াশীল কৃষক ও ক্ষেতমজুর সংগঠন সমূহকে যুক্ত করে কমিটি গঠনের মাধ্যমে ঐ মেশিন যাতে সকল কৃষক বিনা পয়সায় ব্যবহার করতে পারে তার উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সরকার, কৃষি মন্ত্রণালয়, কৃষি বিভাগসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

এমএইচ



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে