ধেয়ে আসা আমফানে উপকূলজুড়ে ভাঙন আতঙ্ক

0
53


ধেয়ে আসা আমফানে উপকূলজুড়ে ভাঙন আতঙ্ক

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় আমফান উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। এর প্রভাবে উত্তাল হয়ে উঠেছে মেঘনা নদী। ভাঙন আতঙ্কে আছেন উপকূলবাসী। ঝুঁকিতে লক্ষ্মীপুরের উপকূলের বাসিন্দারা। বুধবার (২০ মে) সকাল থেকে লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে তীব্র স্রোত ও প্রবল ঢেউ উঠছে। বাতাসের গতিবেগ বৃদ্ধি পাওয়ায় উপকূলজুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে। একই সঙ্গে রয়েছে ভাঙন আতঙ্ক। আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে বলা হয়েছে লক্ষ্মীপুরকে ১০ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে ।

আমফানের প্রভাবে উত্তাল হয়ে উঠেছে মেঘনা নদী। গত দুই-তিন দিনের চেয়ে বুধবার নদীতে পানির উচ্চতা প্রায় ৩ ফুট বেড়েছে। উপকূলে প্রবল বাতাস বইছে। একইসঙ্গে মেঘনা উত্তাল হয়ে পড়ায় উপকূলে ভাঙন আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপকূলের বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যেতে বলা হয়েছে। কিন্তু খাবার না দেয়ার অভিযোগে আশ্রয়কেন্দ্রে আসা মানুষগুলো আবার বাড়িতে ফিরে যাচ্ছেন।

বুধবার সকালে মেঘনা আরও উত্তাল হয়ে ওঠে। পানির উচ্চতা বেড়েছে প্রায় ৩ ফুট। স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি উচ্চতার ঢেউ আছড়ে পড়ছে উপকূলে। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে উপকূলজুড়ে। এর আগে মঙ্গলবার মেঘনার পানি স্বাভাবিকের চেয়ে ১ ফুট বেড়েছিল। এছাড়া রাতভর বিভিন্ন স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে।

আম্পানের প্রভাবে মেঘনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। এতে ভাঙন আতঙ্ক বিরাজ করছে উপকূলজুড়ে। এ কারণে নিজের ভিটেমাটি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে রাজি হচ্ছেন না উপকূলের বাসিন্দারা।

উপকূল এলাকার বাসিন্দা আরিফ হোসেন জানান, মেঘনায় প্রবল স্রোত বইছে। এতে উপকূলের বিস্তীর্ণ এলাকা তলিয়ে যেতে পারে। বুধবার সকাল থেকে থেমে থেমে প্রবল বেগে বাতাস বইছে। কিছুক্ষণ সূর্যের আলো দেখা যাচ্ছে, আবার কিছুক্ষণ পুরো এলাকা অন্ধকার হয়ে যাচ্ছে। সবমিলিয়ে চাপা আতঙ্ক কাজ করছে উপকূলের মানুষের মাঝে।

এসআর



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে