সাংবাদিক কাজলকে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি

0
36


সাংবাদিক কাজলকে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী) এর সাধারণ সম্পাদক মুবিনুল হায়দার চৌধুরী এক বিবৃতিতে বলেন, আওয়ামী ফ্যাসিবাদী সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধে প্রতিদিন আগের দিনের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে। সাহসী সাংবাদিকদের হুমকি, মামলা এমনকি গুম ও খুন পর্যন্ত করা হচ্ছে। ‘পক্ষকাল’ পত্রিকার সম্পাদক ও ‘দৈনিক বণিক বার্তা’র ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে গত ১০ মার্চ অপহরণ করা হয়। যুবলীগের এক নেত্রীর গ্রেফতারের পর তাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ নেতাদের নীতিহীন কর্মকা-গুলো একের পর এক উন্মোচিত হতে থাকে। এরকম একটি সংবাদ ফেসবুকে শেয়ার করার জন্য কাজলের বিরুদ্ধে মামলা করেন আওয়ামী লীগের এমপি সাইফুজ্জমান শিখর। এর পরপরই কাজল নিখোঁজ হন।

গত ২ মে রাতে তাঁকে বেনাপোল সীমান্ত থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে বলে সংবাদ পরিবেশিত হয়। যদিও আমাদের ধারণা এটি একটি সাজানো ঘটনা। পুলিশ তার উপর অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের মামলা দেয়। সেই মামলায় পরের দিন তিনি যশোর জেলা জজ আদালত থেকে জামিন পান। কিন্তু তখন তাঁকে পুনরায় ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করা হয়।

কাজলকে অপহরনের পর তাঁর পরিবার মামলা করলেও তাঁকে খুঁজে বের করার ব্যাপরে কোনো উদ্যোগ সরকারের পক্ষ থেকে দেখা যায়নি। অথচ এই সাংবাদিক ও আলোচিত্রীকে পিছমোড়া করে বেঁধে আদালতে নেয়া হয়েছে, যেন রাষ্ট্রের পক্ষে ভয়ংকর ক্ষতিকর কাউকে তারা আটক করেছেন! আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দেশের একটা সংকটের সময় গরীব মানুষের ত্রাণের চাল লুট করে নিয়ে যাচ্ছে, তার কোনো বিচার হচ্ছে না। অথচ তারা একজন সাংবাদিককে ৫৩ দিন গুম করে রাখা হলো, এখনও তাঁকে পরিবারের কাছে যেতে না দিয়ে আইনি প্রহসন চালিয়ে যাচ্ছেন। সরকারের প্রত্যক্ষ যোগাযোগ ছাড়া এই ধরনের কাজ কোনোভাবেই সম্ভব হতে পারে না। আমরা অবিলম্বে কাজলকে তাঁর পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

এমএইচ



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে