তিন মাস বৃক্ষরোপণ করবে বাংলাদেশ আইন সমিতি

0
50


তিন মাস বৃক্ষরোপণ করবে বাংলাদেশ আইন সমিতি

বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা তথা দেশকে রক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ আইন সমিতির নেতৃবৃন্দ। এ লক্ষ্যে আগামী তিন মাস বাংলাদেশ আইন সমিতি দেশে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে যাবে।

এরই অংশ হিসেবে আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ আইন সমিতির উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

বৃক্ষরোপণে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ আইন সমিতির সভাপতি ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, মহামারী করোনার উদ্ভুত এ পরিস্থিতিতেও বাংলাদেশ আইন সমিতি বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় শুধু বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি দেশের প্রত্যেক নাগরিকের এ সময়ে বৃক্ষরোপণ করা উচিত। আমরা আগামী তিন মাস এ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে যাব।

এ সময় বাংলাদেশ আইন সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকার অতিরিক্ত জেলা জজ কেশব রায় চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ একটা ব-দ্বীপ। এ ব-দ্বীপে টিকে থাকা এবং উন্নতি করা খুবই কঠিন একটি কাজ। এদেশের মানুষকে প্রতিনিয়ত প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা করে বেঁচে থাকতে হয়। এ ব-দ্বীপকে বাঁচাতে হলে বিপুল পরিমাণে বৃক্ষরোপণ প্রয়োজন।

কেশব রায় চৌধুরী আরো বলেন, এই ব-দ্বীপের প্রকৃতি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর এমন সময়োচিত উপলব্ধিসংবলিত ‘প্রত্যেকে তিনটি করে গাছ লাগান’ শীর্ষক আহ্বানে সাড়া দিয়ে হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস এলাকায় বাংলাদেশ আইন সমিতির উদ্যোগে উৎসাহব্যঞ্জক এক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় এ কর্মসূচি দেশের সবাই পালন করবে বলে আমি আশাবাদী।

এ সময় বাংলাদেশ আইন সমিতির সদস্য ও ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্যোগ নিয়েছেন। ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে আমরা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছি। বাংলাদেশ আইন সমিতির সঙ্গে ছাত্রলীগ একাত্মতা পোষণ করে এ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছে। আমি আশা করি, দেশের প্রত্যেক মানুষ কমপক্ষে তিনটি বৃক্ষ রোপণ করে প্রকৃতিকে রক্ষা করবে।

বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আইন সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা মোহাম্মদ কামরুজ্জামান আনছারী, আফজাল-উল মুনীর ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান আল মামুন, ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মামুনুর রশিদ।

পিআর



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে