তিন তরুণীকে ‘ধারাবাহিক’ ধর্ষণ! অতঃপর…

0
16


তিন তরুণীকে ‘ধারাবাহিক’ ধর্ষণ! অতঃপর…

একাধিক তরুণীকে ফাঁদে ফেলে ধর্ষণের অভিযোগে দেওয়ান রসুল হৃদয় (২৫) নামে এক ‘সিরিয়াল রেপিস্টকে’ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রাজধানীর ভাটারা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় ভাটারা থানায় মামলা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ৪ তরুণীর দেয়া জবানবন্দী থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের বাড্ডা অঞ্চলের সহকারী কমিশনার এলিন চৌধুরী সোমবার ভোরের কাগজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দায়ের হওয়া মামলার এজহারে বলা হয়েছে, নিজের চেষ্টায় কিছু করবে বলে বাবা-মাকে না জানিয়ে গেল ১০ সেপ্টেম্বর বাসা থেকে বের হয়ে রাজধানী গুলশানের বাড্ডা রিং রোডে অবস্থানরত বান্ধবীর কাছে আসেন প্রথম বাদী। পরে দুই বান্ধবী একসঙ্গে থাকবে বলে তারা মনস্থির করে।

এরই মধ্যে ফেসবুকের মাধ্যমে তাদের পরিচিত আরেক বান্ধবী পরদিন ১১ সেপ্টেম্বর গাজীপুরে পুলপার্টিতে যেতে দ্বিতীয় বাদীকে আমন্ত্রণ জানান। সেখানে যাওয়ার পর ওই বান্ধবী অভিযুক্ত তরুণী হৃদয়ের সঙ্গে দুজনের পরিচয় করিয়ে দেন। তাদের আশ্বস্তও করেন, প্রয়োজন হলে হৃদয় তাদের থাকার ব্যবস্থাও করে দিতে পারবে।

দুদিন পর ১৩ সেপ্টেম্বর অভিযুক্ত তরুণ হৃদয় ফোন দিয়ে দুই তরুণীকে জানান চাইলে তারা ভাটারা থানাধীন ৮৫ কুড়িল পিনাকল পাম্প সংলগ্ন তার বাসায় থাকতে পারে। কথামতো পরদিন ১৪ সেপ্টেম্বর দুই বান্ধবী রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কে যান।

এরপর হৃদয় তাদের ভাটারার বাসার নিচ তলায় একটি কক্ষে থাকার ব্যবস্থা করে দেন। দুদিন পর গেল ১৬ সেপ্টেম্বর মামলার প্রথম বাদীর সঙ্গে কথা বলার জন্য হৃদয় তার তৃতীয় তলার বাসায় ডেকে নিয়ে যান। সেখানে এক পর্যায়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের কথা কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেন।

ঘটনার চারদিন পর ২০ সেপ্টেম্বর পাশের কক্ষে দুই বাদী আসেন। রাতে আলাপচারিতার এক পর্যায়ে আলোচনায় উঠে আসে পরে আসা দুজনকেও হৃদয় বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করেছেন। এছাড়া দ্বিতীয় বাদীর শ্লীলতাহানি করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে সোমবার পর্যায়ক্রমিক ধর্ষণের ঘটনায় ভাটারা থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

বাড্ডা অঞ্চলের সহকারী কমিশনার এলিন চৌধুরী বলেন, শনিবার বিষয়টি জানার পরেই ভুক্তভোগীদের উদ্ধার করে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়। পরে অভিযান চালিয়ে ওই বাসা থেকে হৃদয়কে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার তিনজন ও যৌন হয়রানীর শিকার একজনসহ মোট ৪ জন পুলিশের কাছে জবানবন্দী দিয়েছেন।

এলিন চৌধুরী আরো বলেন, হৃদয় তার স্ত্রীর করা মামলায় দেড় বছর জেলে ছিলেন। সে সময় তাদের বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটে। হৃদয় নিজে ভাঙা সংসারের সন্তান। তার বাবাও ৫টির বেশি বিয়ে করেছেন বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে তদন্ত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

The post তিন তরুণীকে ‘ধারাবাহিক’ ধর্ষণ! অতঃপর… appeared first on Bhorer Kagoj.

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে