সখীপুরে মাইক্রো স্ট্যান্ডের দাবিতে শ্রমিকদের ধর্মঘট; ভোগান্তিতে যাত্রীরা

0
18

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু: টাঙ্গাইলের সখীপুরে মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড স্থাপন করার দাবিতে ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করেছেন সখীপুর উপজেলা মাইক্রোবাস শ্রমিক সমিতি। রোববার বিকেল থেকে মাইক্রোবাস শ্রমিকেরা তাদের মালিকদের হাতে মাইক্রোর চাবি বুঝিয়ে দিয়ে ধর্মঘট শুরু করেন। এতে ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাস চলাচল না করায় ব্যাপক দুর্ভোগ আর ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

জানা যায়, সখীপুর উপকারাগারের পরিত্যক্ত এক একর জমি দখল করে গত ২০ বছর ধরে মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড ও একটি পরিত্যক্ত ভবনে মাইক্রোবাস শ্রমিক সমিতির ঘর হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। গত ৩ মে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সখীপুর উপজেলা প্রশাসন ওই জমি ও ঘর থেকে তাদেরকে উচ্ছেদ করে। পূণরায় ওই স্থানে মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড ও শ্রমিক সমিতির কার্যালয় গড়ে তুলেন। বৃহস্পতিবার আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়শা জান্নাত তাহেরা ওই স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসান এবং সরকারি কাজে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগে মাইক্রোবাস শ্রমিক সমিতির সভাপতি মো. রাব্বানী (৪০) ও কোষাধ্যক্ষ মো. শাহজাহানকে (৩৫) ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন।

এ ব্যাপারে সখীপুর উপজেলা মাইক্রোবাস শ্রমিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দুলাল হোসেন বলেন, বর্তমানে আমাদের মাইক্রোবাস রাখার কোনো স্ট্যান্ড নেই। মাইক্রোবাস মালিকদের কাছে নির্ধারিত স্থানে স্ট্যান্ড চেয়ে গাড়িগুলোর চাবি জমা দিয়েছি। স্ট্যান্ড না হওয়া পর্যন্ত আমরা গাড়ি চালাব না।
সখীপুর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, চিকিৎসার জন্য ঢাকার একটি হাসপাতালে যাওয়া কথা থাকলেও মাইক্রোবাস না চলায় অনেক কষ্টে বাসে করে আমাকে যেতে হচ্ছে।

মাইক্রোবাস মালিক সমিতির আহ্বায়ক সখীপুর পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফ আজাদ বলেন, শিগগিরই সখীপুর পৌরশহরেই একটি মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড স্থাপন করা হবে। মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডের জন্য জমিও খোঁজা হচেছ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে