১৪টি মৌজার ভূমি জটিলতা নিরসনে ভূমি মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি দল সখীপুরে

0
49

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার ১৪টি মৌজার ভূমি জটিলতা নিরসনে ভূমি মন্ত্রণালয়ের গঠিত উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল ভুক্তভোগীদের শুনানি গ্রহণ ও সরেজমিন পরিদর্শন করতে আজ রোববার সখীপুরে আসছেন। ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (আইন) আনিস মাহমুদের নেতৃত্বে ওই কমিটি ভুক্তভোগীদের শুনানি গ্রহণ করবেন।

জানা গেছে, উপজেলার ১৪টি মৌজার ভূমি মালিকদের নামে ১৯৫৬-৬২ সালে এসএ রেকর্ড হয়। ওই রেকর্ডের ওপর ভিত্তি করে নামজারি ও খাজনা আদায় হয়েছে। জমির রেজিস্ট্রি দলিলও হয়েছে। এরপর এসএ রেকর্ড অনুসরণ করে ১৯৭৬-৮৫ সালে আরএস রেকর্ড সম্পন্ন হওয়ার পর ভূমি মালিকরা নকশা ও পরচা হাতে পান। কিন্তু দীর্ঘ প্রায় দুই যুগ ধরে বনবিভাগের আপত্তির কারণে সখীপুর উপজেলার ১৪টি মৌজার ভোগদখলীয় ভূমি মালিকরা তাদের ভূমির নামজারি করতে ও খাজনা দিতে পারছেন না। ফলে একদিকে সরকার কোটি কোটির রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে; অন্যদিকে হাজার হাজার ভূমি মালিক তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে জমি বেচা-কেনা করতে হচ্ছে। এ নিয়ে ভূমি মালিকরা ভূমি অধিকার বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করে বছরের পর বছর দাবি আদায়ের লক্ষ্যে সভা-সমাবেশ, মিছিল-মিটিং, হরতাল-অবরোধ ও গণঅনশনসহ নানা কর্মসূচি পালন করে আসছে।ভূমি অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক বলেন, ১৪টি মৌজায় এস এ রেকর্ড অনুসরণ করে আরএস রেকর্ড সম্পন্ন হওয়ার পর ভূমি মালিকরা নকশা ও পরচা হাতে পেলেও বনবিভাগের অহেতুক আপত্তির কারণে নামজারি ও খাজনা আদায় বন্ধ রয়েছে। এতে ভূমি মালিকরা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত রয়েছে।

সখীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আমিনুর রহমান বলেন, ১৪টি মৌজার ভূমি মালিকানা নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা নিরসনে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের একটি কমিটি ভুক্তভোগীদের শুনানি গ্রহণ ও সরেজমিন পরিদর্শন করতে আসছেন। শুনানি গ্রহণকালে স্থানীয় এমপি এডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম, সাবেক এমপি অনুপম শাহজাহান জয়, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জুলফিকার হায়দার কামাল, পৌরমেয়র আবু হানিফ আজাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কুতুব উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক শওকত শিকদারসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে ভূমি অধিকার বাস্তবায়ন কমিটি শুনানিতে ভুক্তভোগীদের উপস্থিত করতে কয়েকদিন ধরে ব্যাপক প্রচারণা চালাচ্ছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে