টাঙ্গাইলে মেধাবী মেয়ে সুচিত্রাকে নিয়ে ভীষণ দুশ্চিন্তায় মা

0
93

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার ধোপাকান্দি ইউনিয়নের সাহাপুর গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র ধরের স্বপ্ন ছিল তার মেধাবী মেয়ে সুচিত্রাকে মেডিক্যালে পড়াবেন। দারিদ্র্যতার কারণে মেয়েকে ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াতে পারেননি। কিন্তু এরপরও সুচিত্রা এবার রাজশাহী মেডিক্যালে চান্স পেয়েছে।

সম্প্রতি সন্তোষ চন্দ্র পরলোকগমণ করায় স্ত্রী মুক্তি রাণী ধর অর্থাভাবে মেয়ের লেখাপড়া চালানো নিয়ে ভীষণ দুশ্চিন্তায়। বাড়িভিটে ছাড়া কোনো জমিজমা নেই। ছোট একটি মুরগী খামারের আয়ে দু’বেলা খাবার জোটে না।

ধারদেনার টাকায় মেডিক্যালে ভর্তির ব্যবস্থা হলেও লেখাপড়াসহ আনুসঙ্গিক খরচ কিভাবে জোটাবেন তা নিয়ে এখন চরম দুর্ভাবনায় মা মুক্তি রাণী। তিনি সুচিত্রার লেখাপড়ার সুব্যবস্থার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

এ বিষয়ে গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিকাশ বিশ্বাস জানান, সরকার নারী শিক্ষাকে সর্বোচ্চভাবে গুরুত্ব দিচ্ছেন। সাহাপুর গ্রামের খবর খুবই উৎসাহব্যাঞ্জক। নারী শিক্ষার সাফল্য বিবেচনায় গ্রামটি সারাদেশের জন্য রোল মডেল হতে পারে। সরকারের ‘আমার গ্রাম, আমার প্রকল্পের’ আওতায় সাহাপুর গ্রামকে অন্তর্ভূক্ত করা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে