ইদলিবে ফের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করলে কঠোর শক্তি প্রয়োগ করবে তুরস্ক

0
45

| সোহেল আহম্মেদ

সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিবে কার্যকর করা যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শক্তি প্রয়োগ করতে প্রস্তুত তুরস্ক।

সোমবার (৯ মার্চ) দেশটির নিরাপত্তা বাহীনির একটি সূত্র নাম প্রকাশ না করার
শর্তে এ তথ্য জানিয়েছে।

তুরস্কের সামরিক বাহিনী এবং সিরিয়ার গণহত্যার খলনায়ক আসাদ সরকার বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের কয়েক দিন পর গত বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) মধ্যরাত থেকে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে তুরস্ক ও রাশিয়া।

গত সপ্তাহে মস্কোতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান এবং সুন্নি মুসলমান গণহত্যার খলনায়ক বাশার আল আশাদের মিত্র রাশিয়ার ভ্লাদিমির পুতিনের মধ্যে বৈঠকের পর এই চুক্তি হয়েছে।

সূত্রটি আরও জানায়, সিরিয়ায় তুরস্কের প্রাথমিক লক্ষ্য হচ্ছে স্থায়ী যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠা, রক্তপাতের অবসান এবং বাস্তুচ্যুত জনগণের নিরাপদ প্রত্যাবর্তনের পরিবেশ তৈরি করা। এ কারণেই তুর্কি সশস্ত্র বাহিনী যুদ্ধবিরতি চুক্তির সমস্ত পয়েন্ট বাস্তবায়নের জন্য সর্বাধিক মনোযোগ দিচ্ছে এবং সেই অনুযায়ী মাঠে কাজ করছে।

চুক্তির পর থেকে তুরস্কের পক্ষ থেকে কোনও লঙ্ঘন হয়নি তা দৃঢ়ভাবে জানিয়ে
সূত্রটি জানিয়েছে, যারা যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করবে তাদের বিরুদ্ধে শক্তি প্রয়োগ করতে প্রস্তুত রয়েছে তুর্কি সশস্ত্র বাহিনী।

সূত্র আরো জানায়, যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের বিষয়ে আসাদ সরকারের অপ্রচেষ্টা সম্পর্কে তারা অবগত। তারা এ বিষয়টি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

সূত্র: আনাদুলো এজেন্সি



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে