সিরিয়া দখলের ইচ্ছা নেই; শরণার্থীদের বাড়ি ফেরাতে সেনা মোতায়েন: এরদোগান

0
52

সিরিয়ার সুন্নি মুসলমানদের গণহত্যার খলনায়ক ও স্বৈরশাসক বাশার আল আসাদ সরকার ও তার মিত্র রুশ-ইরানের হামলায় দেশটির ৯ লাখ মুসলমান তুরস্কের শরনার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছে। এর মধ্যে ৫০ হাজার শিবিরে আশ্রয় না পেয়ে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবনযাপন করছে। সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিবপ্রদেশে আসাদ বাহিনীর নৃশংস বোমা হামলা থেকে সুন্নি মুসলমানদের বাঁচাতে ও শরনার্থীদের বাড়িঘরে নিরাপদে ফিরিয়ে নিতে তুরস্ক ইদলিবে সেনা মোতায়েন করেছে।

এ বিষয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, সিরিয়ার শরণার্থীরা যাতে নিরাপদে তাদের ঘরবাড়িতে ফিরে যেতে পারে, সে লক্ষ্যে সিরিয়া-তুরস্ক সীমান্তের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই সিরিয়ায় তুর্কি সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

রোববার  (৮ মার্চ) ইস্তানবুলে এক অনুষ্ঠানের বক্তব্যে তিনি একথা বলেছেন বলে আনাদুল এজেন্সির খবরে বলা হয়েছে।

সিরিয়ার ইদলিবে যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) পুতিন ও এরদোগানের মধ্যে সমঝোতা হয়।

ওই বক্তৃতায় সিরিয়ার ইদলিবপ্রদেশে যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে গত বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে তার যে সমঝোতা হয়েছে, সে সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, সিরিয়ার আসাদ বাহিনী এ যুদ্ধবিরতি মেনে না চললে তাদের ওপর আবারও হামলা শুরু করবেন তুর্কি সেনারা।



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে